মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ১০:২৪ পূর্বাহ্ন

লালমাইয়ে অসামাজিক কাজের দায়ে গ্রেপ্তার ২ জন।
প্রকাশিতঃ সোমবার ১ এপ্রিল, ২০১৯ / ১২০৮ বার দেখা

-অনলাইন ডেস্কঃ লালমাই উপজেলার ভুলইন ইউনিয়নের আশরাফপুর গ্রামে অসামাজিক কার্যকলাপের মূলহোতা এক নারীসহ ২জন আটকের ঘটনায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসী।

স্থানীয়রা জানান, বিয়ের এক বছর পর উশ্চৃঙ্খলা ও চরিত্রহীনতার দায়ে ২০১২ সালের ২৫ জুলাই তালাকপ্রাপ্ত হন আশরাফপুর গ্রামের মৃত মিজানুর রহমানের স্ত্রী সালমা আক্তার। তালাকের পরও জোরপূর্বক সে স্বামীর বাড়িতে থেকে যায়। ২০১৫ সালের ৩ জুলাই রহস্যজনক মৃত্যু ঘটে মিজানুর রহমানের। তার মৃত্যুর পর সালমার আচরণ আরো বেপরোয়া হয়ে ওঠে।

২৪ মার্চ রোববার দিবাগত রাতে ভুশ্চি বাজার পুলিশ তদন্দ্র কেন্দ্রের সহকারী উপ-পরিদর্শক মোঃ মুরাদ আলীর নেতৃত্বে অসামাজিক কার্যকলাপরত অবস্থায় সালমা আক্তার ও উপজেলার গোষাইপুষ্কনীর পাড় গ্রামের মৃত নওয়াব আলী মজুমদারের ছেলে মোস্তফা কামাল মজুমদার (৫৪) কে আটক করা হয়। পরদিন সোমবার তাদেরকে কুমিল্লার আদালতে প্রেরণ করা হয়। আটককৃত সালমা আক্তার ও মোস্তফা কামালের বিরুদ্ধে একাধিক বিয়েসহ বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগ রয়েছে।

এদিকে অসামাজিক কার্যকলাপের মূলহোতা সালমা আক্তার আটকের ঘটনায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন আশরাফপুর গ্রামের বাসিন্দারা। সন্ত্রাস, মাদক প্রতিরোধ ও সামাজিক অবক্ষয় রোধে ভুশ্চি বাজার পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের অগ্রণী ভূমিকার প্রশংসা করেছেন তারা।

অপকর্মের দায়ে আটককৃত ওই নারী এবং মোস্তফা কামালকে আটক করে আদালতে প্রেরণের বিষয়টি নিশ্চিৎ করেছেন ভুশ্চি বাজার পুলিশ তদন্দ্র কেন্দ্রের ইনচার্জ তোফাজ্জল হোসেন।

শেয়ার করুন
এই সাইটের কোন লেখা, অডিও ও ভিডিও বিনা অনুমতিতে প্রকাশ করা বেআইনী ।
Design & Developed BY লালমাই আইটি