Header Border

ঢাকা, শনিবার, ১৭ই আগস্ট, ২০১৯ ইং | ২রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ (শরৎকাল) ২৯°সে
শিরোনামঃ
সদর দক্ষিনে ৫,৪০০ পিস ইয়াবাসহ তিন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার! সদর দক্ষিনে ৯৯৯’এ কল দেয়ায় তিশা প্লাস বাস যাত্রীকে রড দিয়ে পিটুনি! কলমিয়ায় গীতা পাঠশালার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন। ইটালীর ব্রেসিয়ায় শহরে জাতীয় শোক দিবস পালন। মনের সুখই আসল সুখ বা অপরকে সুখী করানোই প্রকৃত সুখ-তোফা লালমাইয়ে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে জাতীয় শোক দিবস পালন। কুমিল্লার জাল নোটের গডফাদার আলমগির আটক জয়নগর জনকল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে ডেঙ্গু প্রতিরোধ ক্যাম্পেইন ও ফ্রী ব্লাড গ্রুপিং! কাঁকসারে রেললাইনের পাশ থেকে অজ্ঞাত লাশ উদ্ধার! সিএনজি ভাড়া নৈরাজ্যের শিকার যাত্রীরা,পদুয়ারবাজার-লালমাই-লাকসাম অনিয়ম বেশি।
          null 

কুমিল্লায় অশ্লীল ওয়াজ রেকর্ড করায় সাংবাদিকের ক্যামেরা ছিনতাই।

                                     
           

কুমিল্লা নাঙ্গলকোট উপজেলার রায়কোট ইউনিয়নের যজ্ঞশাল গ্রামে রফিক উল্লাহ আফসারীর অশ্লীল ওয়াজ রেকর্ড করায় সাংবাদিকের ক্যামেরা ছিনতাই করার ঘটনা ঘটেছে। কোন সাংবাদিক বা মিডিয়া কর্মী থাকলে আমি ওয়াজ করবো না। কোন মোবাইলে আমার ওয়াজ রেকর্ড করলে আমি ওয়াজ বন্ধ করে আমি মাহফিল শেষ করে দিব। কোন ক্যামেরায় আমার ওয়াজ ধারন করলে ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়া হবে। বাস্তবতাও প্রমান হলো, । গত (২০ ফেব্রুয়ারী ১৯) বুধবার রাত ৮টা ৩০ মিনিটের সময় এঘটনা ঘটে।

এলাবাসীর উদ্যোগে আয়োজিত ওয়াজ মাহফিলের প্রধান বক্তা মুফতি মাওলানা রফিক উল্লাহ আফসারীর নির্দেশে মেঘনা টিভির এক সাংবাদিকের কেমেরায় ওয়াজ রেকর্ড করার সময় তার ক্যামেরা ছিনিয়ে নিলেন।

মোবাইলে যেসব শ্রোতা ওয়াজ রেকর্ড করছেন প্রথমে তাদের মোবাইল গুলো বন্ধ করার হুমকি দেন, রেহাই পাননি মাহফিল আয়োজক কমিটির ভাড়া করা ক্যামেরাও। তার নিজের সহকারীর নিয়োগ দিয়েছেন ভিডিও ধারন করা ও মোবাইল রিসিভ করার জন্য। ১ থেকে দেড় ঘন্টা ওয়াজ করে (দাবি করে) নেন ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা। শ্রোতারা মোবাইলে ওয়াজ রেকর্ড করে বাসায় নিতে পারবে না। ওয়াজ শুনতে হলে তার নিজস্ব টেলিভিশন রয়েছে (টিভির নাম অজ্ঞাত)। 

আয়োজক কমিটির অনুমতি নিয়ে ওই সাংবাদিক ওয়াজ মাহফিল রেকর্ড করার অনুমতি পেলেও রেহাই পাননি কুমিল্লার জেলা প্রতিনিধি মেঘনা টিভির সাংবাদিক ও রিপোর্টার। মাহফিল শুরুর ১০ মিনিটের মাথায় ছিনিয়ে নেয়া হয় এই টিভি সাংবাদিকের ক্যামেরা। ছিনিয়ে নেয়া হয় অনেকের মোবাইল। 
হাল ছাড়েননি সেই সাংবাদিক রেকর্ডিংয়ের কাজ, সংগ্রহ করলেন পাশে বসা এক শ্রোতার মোবাইলে গোপনে ধারন করা ভিডিও। পুরো ১ঘন্টা ২০ মিনিটে কি করলেন মাহফিলে ? শ্রোতাদের মন যোগাতে বেপাসা আলোচনা, অসামাজিক কথা বার্তা, অশোভ আচরন, যুবকদের উস্কানীমুলক কথা আলোচনা। 

গেয়েছেন কলিজার ভিতর বাইন্দা রাইখুম তোমারে ও ননাইরে……… তুমি কোন বা দেশে রইলারে দয়াল চাঁন, শ্রোতাদের মন যোগাতে এসব গানের উদাহরন দিয়ে গানের শোর ঠিক রেখে নতুন করে কথা যোগ করেন। মাহফিল শেষে এক ভক্ত বলেন, তার ওয়াজ নাকি এডিড করা হয়, তাই তিনি সবাইকে ভিডিও করতে দেন না। দর্শকবৃন্দ আপনাদের কাছে প্রশ্ন লেখা এডিট করা যায়, ছবি এডিট করা যায়, ভিডিও কি এডিট করা যায় ? ভিডি কার্ট-কার্ট করে আগে পিছে নেয়া যায়, ভিডিওতে কি ভয়েস পরিবর্তন বা ছবি পরিবর্তন করা যায়? প্রশ্ন আপনাদের কাছে ?

কেমেরা ছিনিয়ে নেয়ার বিষয়ে পরের দিন সকালে ওই হজুরের সাথে মোবাইলে ছিনতাইয়ের বিষয়ে কথা বলতে চাইলে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে তিনি মোবাইলটি বন্ধ করে দেন।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও খবর

সম্পাদকঃ নাছির আহমেদ

০১৬২৬৩৭৯৯২৭

সহ-সম্পাদকঃ আলা উদ্দিন

Info.alauddin5330@gmail.com